Emergency Contact Number : ( +91 ) 9073146514

Friday, February 08, 2019

Space লিফট-Thothx-মিনার : Make-Earth-Like-Saturn

https://www.theguardian.com/science/2015/aug/17/space-elevator-thothx-tower

উপরে মহাকাশ যাচ্ছ? মহাকাশ লিফট পৃথিবীর স্ট্রাটোস্ফিয়ারে মহাকাশচারী জুম করতে পারে
কানাডিয়ান স্পেস ফার্মটি ইউটিউব এবং যুক্তরাজ্যের ইউটিলিটি পেটেন্টগুলিকে অনুমোদন দিয়েছে যে পৃথিবী থেকে ২0 কিলোমিটার (1২ মাইল) দূরে মহাকাশচারীকে স্থানান্তরিত করতে হবে যাতে তারা স্পেসে চালিত হয়।


একটি কানাডিয়ান Space ফার্ম একটি সহজ ধারণা দিয়ে Space ভ্রমণ বিপ্লব র এক ধাপ কাছাকাছি - একটি রকেট জাহাজ গ্রহণের পরিবর্তে, মহাশূন্যে একটি দৈত্য লিফট না কেন?
থোথ টেকনোলজি ইনকর্পোরেটেডকে স্ট্র্যাটোস্ফিয়ারে নিয়ে যাওয়ার জন্য ডিজাইন করা একটি স্পেস লিফ্টের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাষ্ট্রে দুটি পেটেন্ট সরবরাহ করা হয়েছে, যাতে তারা স্থানটিতে চালিত হতে পারে। কোম্পানিটি থোথএক্স টাওয়ার নামক টাওয়ারটি একটি বৈদ্যুতিক লিফট দিয়ে সম্পূর্ণ প্রস্ফুটিত, ফ্রিস্ট্যান্ডিং কাঠামো হবে এবং এটি পৃথিবীর ২0 কিলোমিটার (1২.5 মাইল) অতিক্রম করবে। "মহাকাশচারী বৈদ্যুতিক লিফট দ্বারা 20km পর্যন্ত উঠতে হবে। টাওয়ারের শীর্ষ থেকে, মহাকাশযানগুলি একক পর্যায়ে কক্ষপথে শুরু হবে, ফিরতি এবং রিফাইট করার জন্য টাওয়ারের শীর্ষে ফিরে আসবে, "ব্রাডেন কুইন, টাওয়ারের উদ্ভাবক, এক বিবৃতিতে বলেছিলেন। ল্যাবের নোটগুলির জন্য সাইন আপ করুন - গার্ডিয়ানের সাপ্তাহিক বিজ্ঞান আপডেট আরো পড়ুন ঐতিহ্যগতভাবে, 50 কিলোমিটার (31 মাইল) উচ্চতায় উচ্চতায় অবস্থিত অঞ্চলগুলি কেবলমাত্র রকেট জাহাজগুলি দ্বারা পৌঁছাতে পারে, যেখানে ভরটি বিপরীত দিকে তাকাতে উচ্চ গতিতে বহিষ্কৃত হয়। কুইন পেটেন্টে বলেন যে রকেটটি "অত্যন্ত অদক্ষ" এবং একটি স্থান লিফট কম শক্তি গ্রহণ করবে।

Space-Ship-Usa-India-Space-Catch-Thanks









সূর্যকে আমাদের জানতে হবে | আমরা সূর্য থেকেই সৃষ্টি | আরো পৃথিবী কিভাবে চাই কিংবা পৃথিবী কে কিভাবে বাঁচাতে হবে তা শিখতে হবে | পৃথিবীর ভেতরে যে লাভা আছে তা সূর্যেরই অংশ | তাই সেটা যখন পৃথিবীর পেট থেকে বাইরে আসে তখন আমাদের অসুবিধা হবেই | তাই ভূমি থেকে অনেক উপরে বায়ুমন্ডলে আমাদের Space ship বানিয়ে রাখতে হবে | যাতে ভেতরে আমরা জন্ম-জন্মান্তর টিকে থেকে সূর্য কে আবিষ্কার করতে পারি | 

 এর ফলে

 ভূমিকম্প সুনামি, ঝর,  মশা ব্যাকটেরিয়া সব চলে যাবে ভয়ের প্রকল্প থেকে | 

মানুষের ভয় থাকবে কোন দিকে ?

সূর্যের দিকে | কারণ পৃথিবী জেনে ফেলেছে মানুষ | এবার মঙ্গল গ্রহে কি জানতে যাচ্ছে মানুষ |
এবার মঙ্গলে জানলে হবে না | জানতে হবে পৃথিবীতে আমরা টিকে থাকব কি করে | দশ লক্ষ বছর বাঁচবো কি করে | নিশ্চয়ই রক্ত চেঞ্জ করে নয় শুধু তাই তো | কারণ মশা, উকুন , এরা মানুষের রক্ত খায় রোগ ছড়ায় মানুষ কি মশার তেল ব্যবহার করে ভূমিকম্প থেকে বাঁচতে পারবে ? না নিশ্চয়ই ? 

তাহলে স্পেস স্টেশন টাকে আরও বড় তৈরি কর USA ,  INDIA যুদ্ধ বন্ধ করো আর এগিয়ে চলো কারণ যুদ্ধটা ওইটা নিয়েই | SPACE স্টেশন এর মধ্যে কি চাই তাই তো আগে সেটার প্ল্যান করো | হঠাৎ করে উল্কাপিণ্ড সূর্য থেকে চলে আসলে তাকে CATCH করে নাও আর সূর্যকে বল THANKS. Ok ? 

কারণ ওটাই সোনা , রূপো ইত্যাদি , তাইতো ?
কোন দিকে চিন্তা করছ ? পৃথিবীতে ALIEN পাওয়া যায় না বুঝি ? যে মঙ্গলে গেছো খুঁজতে ? মানুষ হলো আহাম্মক | এভাবে আহাম্মক হইও না বন্ধুরা | কিছু কর | না হলে একদিন সব ধ্বংস হয়ে যাবে |

এবার আসল কথা  | SPACE STATION এর ভিতরে কি চাই ?



 সেখানে বাতাসে ধূলিকণা থাকবে না | বাতাসে অ্যান্টিভাইরাস থাকবে | এমন অ্যান্টিভাইরাস থাকবে সেটা যে কোন শরীরের সমস্ত ব্যাকটেরিয়া নষ্ট করে দেবে | বাতাসে অক্সিজেন থাকবে | শুধুই অক্সিজেন |



মানুষের শরীরে কিন্তু উকুন থাকে |  এটাও মনে রেখো চামড়ার মধ্যে উকুন ঘুরে বেড়াচ্ছে সেটা কি দেখতে পাও খালি চোখে ? কুকুরের শরীর দেখলে কি মনে হয় ? দেখতে কি পাও এঁটুলি পোকা ঘুরে বেড়াচ্ছে ? এটাই নরক যন্ত্রণা | পৃথিবীতে স্বর্গ বানাতে হবে কি করে বলতো ? ঠিক এরকম করতে হবে তবেই হবে |
স্বর্গের উদ্যানে শুধু ফুল , শাকসবজি এসব তো পাওয়া যেতেই পারে , আবার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য পাওয়া যেতে পারে |  কিন্তু সেখানে যদি মশার ঘুরে বেড়ায় , তবে কি রকম লাগবে বলতো ? স্বর্গের উদ্যান এ মশা নিশ্চয়ই ভালো লাগে না ? তাই একটু ওপর থেকে যদি স্বর্গ টাকে দেখা যায় ,  তবে ভালো নয় কি ?

খাবারে যেন ভাইরাস না থাকে | মাংস যেন ভাইরাস মুক্ত হয় | মাংসের মধ্যে যেন কৃমি না পাওয়া যায় | 
পেটের ভিতর যেন ক্যান্সার না হয় | 



এই ছবিটা দেখে কি মনে হয় ?

 ভাবো তো পৃথিবীতে  সুনামি হয়ে গেল | পৃথিবীর মধ্যে হয়তো একটা গোটা মহাদেশ জলের তলায় চলে গেল সুনামির ফলে | আর তুমি স্পেস স্টেশনে বসে আরাম করে চা খেতে খেতে সেটা দেখছো , আর ভাবছো যে  আমাদের স্বর্গ একটুখানি অন্যরকম হয়ে গেছে | কিন্তু স্পেস স্টেশনে চা খাবে কি করে সেটা কি ভেবেছো ? 

 আমাদের বায়ুমণ্ডলের ভেতরে যে স্তর আছে তার মধ্যেই SPACE STATION  টা ভেসে থাকবে , এরকম একটা কিছু করতে হবে |